Bangabandhu Shishu Kishore Mela

আগামীকাল ২৭তম জাতীয় শিশু দিবস। টুঙ্গিপাড়াসহ সারাদেশে বঙ্গবন্ধু শিশু কিশোর মেলার ব্যাপক প্রস্ততি। মেলার সকল স্তরের নেতৃবৃন্দের প্রতি রইল মুজিব বর্ষ ও ২৭তম ‘জাতীয় শিশু দিবস’ এর শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন।

————————————————

আগামীকাল বঙ্গবন্ধুর জন্মশত বর্ষে পালিত হবে জাতীয় শিশু দিবস। বঙ্গবন্ধু শিশু কিশোর মেলা পালন করবে ২৭তম জাতীয় শিশু দিবস।

দিবসটি পালন উপলক্ষে জাতিরপিতার জন্মস্থান টুঙ্গিপাড়াসহ সারাদেশে নেয়া হয়েছে ব্যাপক প্রস্তুতি।

 

টুঙ্গিপাড়া

————-

টুঙ্গিপাড়ায় বঙ্গবন্ধু শিশু কিশোর মেলা বিকেল তিনটায় বঙ্গবন্ধুর সমাধিতে পুষ্পস্তবক অর্পন করে শততম মুজিব বর্ষ কর্মসূচি ও ২৭তম জাতীয় শিশু দিবস কর্মসূচির সূচনা করবে।

বঙ্গবন্ধু শিশু কিশোর মেলা’র গোপালগঞ্জ জেলার নেতৃত্বে টুঙ্গিপাড়ার আয়োজনে একই কর্মসূচি নেয়া হয়েছে। কর্মসূচিতে  সদর থানা, টুঙ্গিপাড়া, কোটালিপাড়া, কাশিয়ানী,মুকসেদপুর উপজেলার শিশু-কিশোরসহ নেতৃবৃন্দ অংশ নেবে।

গোপালগঞ্জ জেলার সভাপতি নুর আলম গাজী, সাধারণ সম্পাদক হাসান সর্দার, আয়োজক টুঙ্গিপাড়া শাখার সভাপতি আজিজুল ইসলাম ও সাধারণ সম্পাদক ফায়সাল মেহেদী জানিয়েছেন ইতিমধ্যে তাদের যাবতীয় প্রস্তুতি শেষ। বিকেলে যথাসময়ে শিশু কিশোরদের র‌্যালীসহ বঙ্গবন্ধুর সমাধিতে পুষ্পস্তবক অর্পন করে দিবসের সূচনা করা হবে।

সারাদেশে ব্যাপক প্রস্তুতি

——————————-

বঙ্গবন্ধু শিশু কিশোর মেলার সারাদেশে ব্যাপক প্রস্তুতি নেয়া হয়েছে। ইতিমধ্যে সুদৃশ্য মাথার ক্যাপ পৌঁছে গেছে সারাদেশের শাখাসমূহে।বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে পুষ্প স্তবক অর্পন, র‌্যালী, বঙ্গবন্ধুর জীবনী বিষয়ক বক্তৃতা পর্ব, শিশুদের নিয়ে কেক কাটা কর্মসূচিসহ বিভিন্ন কর্মসূচি নেয়া হয়েছে।

উল্লেখ্য, বঙ্গবন্ধু শিশু কিশোর মেলা ১৯৯০ সালের ৩রা আগষ্ট প্রতিষ্ঠার পর ১৯৯৩ সালে আয়োজিত প্রথম জাতীয় সম্মেলনে বঙ্গবন্ধুর জন্মদিনে জাতীয় শিশু দিবস পালনের সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়। মেলার প্রতিষ্ঠাতা উপদেষ্টা ড. নীলিমা ইব্রাহিম তত্কালিন বিরোধী দলীয় নেত্রী, আওয়ামী লীগ সভানেত্রী বঙ্গবন্ধুকন্যা শেখ হাসিনার উপস্থিতিতে প্রস্তাব করেন। তখন প্রায় দুই সহস্রাধিক প্রতিনিধির উপস্থিতিতে অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি শেখ হাসিনার উপস্থিতিতে এই প্রস্তাব গৃহীত হয়।

পরের বছর বাংলাদেশ শিশু একাডেমিতে বঙ্গবন্ধুর জন্মদিনে ড. নীলিমা ইব্রাহিম প্রস্তাবিত, বঙ্গবন্ধু শেখ হাসিনা সমর্থিত এবং বঙ্গবন্ধু শিশু কিশোর মেলা প্রবর্তিত প্রথম   জাতীয় শিশু দিবস উদ্বোধন করেন বঙ্গবন্ধুকন্যা শেখ রেহানা।প্রথম জাতীয় শিশু দিবসের অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন তত্কালিন সভাপতি ও বঙ্গবন্ধু শিশু কিশোর মেলার বর্তমান পরিচালক মহিউদ্দিন মানু।

১৯৯৭ সালে আওয়ামী লীগ সরকার ক্ষমতায় আসার পর জাতীয় শিশু দিবস সরকারী স্বীকৃতি লাভ করে। সরকারীভাবে আয়োজিত জাতীয় শিশু দিবস উদ্বোধন করেন মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

মুজিব বর্ষে ২৭তম জাতীয় শিশু দিবসে সকলের প্রতি রইলো কেন্দ্রীয় বঙ্গবন্ধু শিশু কিশোর মেলার শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন।

Leave a Comment

Your email address will not be published.